Bangladesh Violence After Attack On Noakhali Temple On Durga Puja, ISKCON Priest Worships Durga In Ransacked Pandal Viral Video


কলকাতা : চারিদিক যেন ধ্বংসস্তূপ। ভাঙা মঞ্চ। ছিন্নভিন্ন মণ্ডপ। দেবীমূর্তির (Durga Puja 2021) চিহ্নমাত্র নেই। অথচ পরিপাটি করে সাজানো নৈবেদ্য, প্রসাদ, ধুপ, ধুনো। ঘণ্টাধ্বনি করে দেবী মহামায়াকে অর্চনা করছেন পুরোহিত মহাশয়। পাশে পুজোর আয়োজনে করজোড়ে মহিলারা। সম্প্রতি বাংলাদেশের (Bangladesh) এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। বাংলাদেশে শারদোৎসবে দুষ্কৃতী হামলার পর সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে সমালোচনার ঝড়। বাংলাদেশে নোয়াখালিতে ইসকন মন্দিরে হামলা ও একাধিক জায়গায় ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগের ঘটনায় উত্তাল সামাজিক মাধ্যমও। এরই মধ্যে ভাইরাল (viral Video) হয়েছে এই ভিডিওটি। 


(ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করেনি এবিপি লাইভ)

অভিযোগ, অষ্টমীর রাত থেকে বিভিন্ন পুজোমণ্ডপে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে কিছু দুষ্কৃতী। নোয়াখালিতে ইসকনের মন্দিরেও হামলা চালানো হয়। শতাধিক দুষ্কৃতী মন্দিরে ঢুকে হামলা চালায় ও ভাঙচুর করে। আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। ইসকনের জাতীয় যোগাযোগ সংক্রান্ত অধিকর্তা ব্রজেন্দ্র নন্দন দাসের অভিযোগ, হামলায় ৩ জন ভক্তের মৃত্যু হয়েছে। ইসকনের তরফে বাংলাদেশ সরকারের কাছে দ্রুত তদন্ত ও ভবিষ্যতে এই ধরনের ঘটনা যাতে না ঘটে, সেই ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে। ঘটনায় দৃষ্টি আকর্ষণ করে রাষ্ট্রপুঞ্জেও চিঠি দিয়েছে ইসকন কর্তৃপক্ষ। Secretary General of the United Nations অ্যান্তনিও গুটারিসের উদ্দেশে লেখা চিঠিতে ইসকনের পক্ষ থেকে লেখা হয় ওই ঘটনার কথা। 

উৎসবের মধ্যে একের পর এক অশান্তির ঘটনায় কড়া অবস্থান নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করে তাঁদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি জানান, ‘ ধর্ম যার যার উৎসব সবার। প্রত্যেকে যার যার নিজস্ব ধর্ম, স্বাধীনভাবে আনন্দের সঙ্গে পালন করবেন বাংলাদেশে। কিছু দুষ্টচক্র দেশের এই নীতিকে নষ্ট করার চক্রান্ত করে। শক্ত হাতে সরকার তা দমন করবে। তদন্ত শুরু হয়েছে। যারা ঘটনা ঘটিয়েছে, তাদের চিহ্নিত করে কঠোর পদক্ষেপ করা হবে।’ 

বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানিয়েছেন, হামলার ঘটনায় প্রায় ৯০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অশান্তি দমনে বাংলাদেশ সরকারের সদর্থক ভূমিকার কথা উল্লেখ করে বিবৃতি দিয়েছে বিদেশমন্ত্রক। ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি জানান, ‘ বাংলাদেশে ধর্মীয় জমায়েতের উপর হামলার কিছু খবর আমরা পেয়েছি। বাংলাদেশ সরকার কঠোরভাবে পদক্ষেপ করছে। দুর্গাপুজো বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভারতীয় হাই কমিশন বাংলাদেশের সরকারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রেখে চলেছে। ‘ 



Source link