IPL 2021: KKR Captain Eoin Morgan Warns The Opponents, Says They Are A Dangerous Side With Nothing To Lose


কলকাতা: করোনার ধাক্কা কাটিয়ে শুরু হল আইপিএলের বাকি অংশ। সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় পর্বে সোমবার মাঠে নামছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders)। সামনে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। মাঠে নামার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন নাইটরা।

পয়েন্ট টেবিলে কেকেআরের পরিস্থিতি অবশ্য মোটেই আশাব্যঞ্জক নয়। সাত ম্যাচের মধ্যে পাঁচটিতেই হেরে গিয়েছেন অইন মর্গ্যান-দীনেশ কার্তিকরা। ঝুলিতে মাত্র ৪ পয়েন্ট নিয়ে আট দলের টুর্নামেন্টে ৭ নম্বরে রয়েছে কেকেআর। তবে প্রতিপক্ষদের সতর্ক করে দিচ্ছেন মর্গ্যান। নতুন করে কিছু হারানোর নেই বলে তাঁরা দল হিসাবে ভয়ঙ্কর, মনে করিয়ে দিচ্ছেন নাইট নেতা।

আরসিবি ম্যাচের আগের দিন মর্গ্যান বলেছেন, ‘এখান থেকে সব কিছু আমাদের হাতে, কোনও সামনে বা পিছনে তাকানো নেই। ঘুরে দাঁড়ানোর মন্ত্র আমাদেরই খুঁজে বার করতে হবে। আমাদের কিছু হারানোর নেই আর তাই দল হিসাবে আমরা ভয়ঙ্কর।’

করোনার কোপে মাঝপথে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল আইপিএল। রবিবার মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বনাম চেন্নাই সুপার কিংস ম্যাচ দিয়ে শুরু হল দ্বিতীয় পর্ব। মর্গ্যান বলছেন, ‘আমি খুব খুশি যে, টুর্নামেন্টের বাকি অংশের খেলা শুরু হচ্ছে। প্রথমার্ধে ফলাফল আমাদের পক্ষে ভাল ছিল না, একটা বিরতি সেদিক থেকে হয়তো ভালই হবে। আমরা নিজেদের গুছিয়ে নেওয়ার সময় পেয়েছি। আবু ধাবিতে ছেলেরা সাফল্যের জন্য ক্ষুধার্ত হয়ে রয়েছে, ফিট আর দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আমরা খুব উত্তেজিত।’

সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রায় সব ক্রিকেটারেরই। আইপিএলের এই পর্বে প্যাট কামিন্স নেই। তাঁর পরিবর্তে দলে এসেছেন টিম সাউদি। যাঁকে নিয়ে মর্গ্যান বলছেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছে। অভিজ্ঞ।’ নাইট শিবিরের অন্যতম ভরসা দুই বিস্ময় স্পিনার বরুণ চক্রবর্তী ও সুনীল নারাইন। মর্গ্যানের কথায়, ‘গতবার এখানে বল খুব একটা ঘোরেনি। তারপরও দুই স্পিনার দারুণ খেলেছিল। বরুণের কাছে দারুণ সুযোগ। গতবার দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে পাঁচ উইকেট নিয়েছিল। সুনীল দলের সম্পদ। বছরের পর বছর ধরে নিজেকে প্রমাণ করে চলেছে।’

প্লে অফে যাওয়ার আশা বাঁচিয়ে রাখতে বাকি ৭ ম্যাচের মধ্যে অন্তত ৫টিতে জিততেই হবে নাইটদের। তবে শুভমন গিল-নীতিশ রানাদের শুরুতেই অগ্নিপরীক্ষা। দ্বিতীয় পর্বে প্রথম চার ম্যাচে তাঁদের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর, মুম্বই ইন্ডিয়ান্স, চেন্নাই সুপার কিংস ও দিল্লি ক্যাপিটালস। যারা পয়েন্ট টেবিলে প্রথম চারে রয়েছে। মর্গ্যান বলছেন, ‘ম্যাচ ধরে ধরে এগচ্ছি। আগে আরসিবি ও মুম্বই ম্যাচে মনঃসংযোগ করছি। ড্রেসিংরুমের আবহ চমৎকার। চাপের মুখে তা সাহায্য করে। ক্রিকেটারদের পারস্পরিক বোঝাপড়া দারুণ। সব দলই গত মরসুমে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে খেলেছে। তাই পরিবেশ-পরিস্থিতি নিয়ে সকলেই ওয়াকিবহাল। এখানকার পরিবেশ আমাদের পক্ষে উপযুক্ত। তরুণ ক্রিকেটারেরা অনেক উন্নতি করেছে। আশা করছি শুরু থেকে ওরা ছন্দে থাকবে।’

২০১৪ সালে প্রায় একইরকম পরিস্থিতি থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল কেকেআর। এবারও কি সেই পারফরম্যান্সের পুনরাবৃত্তি করতে পারবে শাহরুখ খান-জুহি চাওলার দল?

ফিট নন! খেলছেন না রোহিত, প্রথম ম্যাচে হার্দিককেও পাচ্ছে না মুম্বই



Source link