Kolkata Army Jawan Dies Mysteriously Ballygunge Maidan Camp Hanging Body Recovered From Nearby Forest


পার্থপ্রতিম ঘোষ, কলকাতা: বালিগঞ্জ সেনা ক্যাম্পে জওয়ানের রহস্যমৃত্যু। ক্যাম্পের জঙ্গল থেকে গলায় তার জড়ানো অবস্থায় উদ্ধার ঝুলন্ত দেহ। 

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম অশোক গারাগাদ। বাড়ি কর্ণাটকে। গতকাল রাতে সেনা ক্যাম্পের জঙ্গল থেকে ওই জওয়ানের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে বালিগঞ্জ থানার পুলিশ। দেহের কাছ থেকে মিলেছে হিন্দিতে লেখা সুইসাইড নোট। 

পুলিশ সূত্রে খবর, বছর ছত্রিশের ওই জওয়ানের উত্তরবঙ্গে কর্মরত ছিলেন। বদলির পর ৫ অক্টোবর কলকাতায় আসেন। সুইসাইড নোটটি কার লেখা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। 

এদিকে, বরানগরে লেক ভিউ পার্ক এলাকায় অভিজাত আবাসনের সামনে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির দেহ ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল। 

আজ সকালে ওই ব্যক্তিকে রাস্তায় নর্দমার ধারে উপুড় হয়ে পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। পরে বরানগর থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে। দেহে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে কি না, খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

অন্যদিকে, ভাঙড়ের কোঁচপুকুরে স্বামীকে বেহুঁশ করে বালিশ চাপা দিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল। গ্রেফতার মৃতের স্ত্রী। স্থানীয় সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরে আনসুর আলি গাজি ও তাঁর স্ত্রী মুসলিমা গাজির মধ্যে অশান্তি চলছিল। 

অভিযোগ, বুধবার রাতে দম্পতির মধ্যে বচসা চরমে ওঠায়, স্বামীকে বেঁহুশ করে বালিশ চাপা দিয়ে খুন করেন স্ত্রী। গতকাল অভিযুক্ত মহিলাকে গ্রেফতার করে কলকাতা লেদার কমপ্লেক্স থানার পুলিশ। 

আবার পঞ্চমীর রাতে নরেন্দ্রপুরে এক যুবককে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠল। মৃতের নাম চন্দন রায়। ঘটনাটি ঘটেছে রানিয়া তিরিশ ফুট এলাকায়। 

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, এ বছরের ১ জানুয়ারি স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে চন্দনের গন্ডগোলের জেরে মারপিট হয়। পঞ্চমীর দিন ওই যুবককে একা পেয়ে বেধড়ক মারধর করে অভিযুক্তরা। 

পুলিশ আক্রান্তকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। গতকাল রাতে হাসপাতালেই মৃত্যু হয় যুবকের। পুরনো শত্রুতার জেরে পিটিয়ে মারা হয় বলে অভিযোগ মৃতের পরিবারের। 

এই ঘটনায় খুনের মামলা রুজু করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। অভিযুক্তরা অধরা। 



Source link