Trinamool Decided To Expel Sachchidananda Banerjee And Tanima Chatterjee


সঞ্চয়ন মিত্র, কলকাতা: সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায় (Sachchidananda Banerjee), তনিমা চট্টোপাধ্যায়কে (Tanima Chatterjee) বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত তৃণমূলের (TMC)। দলের নির্দেশ অমান্য করে নির্দল প্রার্থী হওয়ায় বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত তৃণমূলের। নির্দল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র (Nomination) প্রত্যাহার না করায় বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত। 

দুজনকে বহিষ্কার প্রসঙ্গে ৮৫ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী দেবাশিস কুমার এদিন বলেন, ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডে নির্দল প্রার্থী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বোন তনিমা চট্টোপাধ্যায়। ৭২ নম্বর ওয়ার্ডে নির্দল প্রার্থী সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায়। দলের নির্দেশ অমান্য করে নির্দল প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিন পর্যন্ত তাঁদের সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। তাঁরা সেই সুযোগ করেননি। দল তাঁদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।”

এবার কলকাতা পুরসভার (Kolkata Municipal Corporation Election) ভোটে পুরনো কাউন্সিলরদের অনেককেই টিকিট দেয়নি তৃণমূল। সেই তালিকায় অন্যতম ৭২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর ও কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান (Former Chairman of Kolkata Municipal Corporation) সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায়। টিকিট না পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে নির্দল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন তিনি। অন্যদিকে, ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডে, তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে প্রয়াত সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বোন তনিমা চট্টোপাধ্যায়ের নাম ঘোষণা করা হয়। তিনি প্রচারেও নেমে পড়েন কিন্তু পরে তাঁর কাছ থেকে দলীয় প্রতীক ফেরত নিয়ে বিদায়ী কোঅর্ডিনেটর সুদর্শনা মুখোপাধ্যায়-কেই লড়তে বলে তৃণমূল। দ্বন্দ্বের সূত্রপাত সেখান থেকেই।

উল্লেখ্য, মনোনয়ন প্রত্যাহারের বিষয়ে আগে থেকেই অনড় ছিলেন সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায়, তনিমা চট্টোপাধ্যায়রা। জানিয়েছিলেন, নীতিগতভাবে তাঁরা পুরভোটে লড়াই করছেন। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন পেরিয়ে গিয়েছে। গত সপ্তাহে পুরভোট বৈঠকে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বার্তা দেন, যাঁরা টিকিট পাননি, তাঁরা যদি অশান্তি করেন বা দলকে হারানোর চেষ্টা করেন, তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর দলের নির্দেশ অমান্য করায় সচ্চিদানন্দ, তনিমাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত তৃণমূলের। 

আরও পড়ুন: Kolkata Municipal Election: কলকাতা পুরভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী চাওয়ায় ধনকড়কে নিশানা কল্যাণের



Source link