Upper Primary Recruitment Allegations Of Corruption In The Upper Primary


কলকাতা: ২০১৬-য় আপার প্রাইমারি (Upper Primary) প্যানেলেও দুর্নীতির (Corruption) অভিযোগ। গ্রুপ-ডির (Group-D) পরে এবার আপার প্রাইমারি (Upper Primary) নিয়েগে হাইকোর্টে (High Court) মামলা। তদন্ত শুরু হয়েছে, হাইকোর্টে জানাল রাজ্য সরকার (West Bengal Government)।

ঠিক কী অভিযোগ? অভিযোগ, তফশিলি উপজাতির তালিকায় তফশিলি জাতির চাকরি প্রার্থী। সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) গাইডলাইনে স্পষ্ট আছে কারা এসসি, কারা এসটি। কমপক্ষে ৭৫জন তফশিলি জাতিভুক্ত প্রার্থী এসটির প্যানেলে। সুপ্রিম কোর্টের গাইডলাইন না মেনেই প্যানেল তৈরির অভিযোগ। ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে রাজ্য। ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে রাজ্যের রিপোর্ট চাইল হাইকোর্ট।

এদিকে স্কুলে গ্রুপ-ডি (Group D) কর্মী নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ সংক্রান্ত মামলায় সিবিআইকে (CBI) দিয়ে অনুসন্ধানের নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta HighCourt) সিঙ্গল বেঞ্চ। এবার সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে গেল রাজ্য সরকার।  আদালত সূত্রে খবর রাজ্য সরকার (West Bengal State Government), এসএসসি (SSC) এবং মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এই তিন পক্ষ মামলা দায়ের করার অনুমতি চায়। সেই অনুমতি দিয়েছে বিচারপতি হরিশ টন্ডন এবং বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তর ডিভিশন বেঞ্চ। আগামীকাল যে মামলার শুনানির সম্ভাবনা।

স্কুলে গ্রুপ-ডি কর্মী নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ সংক্রান্ত মামলায় স্কুল সার্ভিস কমিশনের ভূমিকার প্রথম থেকেই তীব্র সমালোচনা করেছে হাইকোর্টের বিচাপরতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চ। কীভাবে সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরও নিয়োগ সেই নিয়ে কমিশনের সচিবের কাছে বিস্তারিত ব্যাখ্যাও চেয়েছিলেন তিনি। তখনই তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছিলেন প্রয়োজনে সিবিআই তদন্তের। যদিও সোমবার সিবিআই তদন্ত নয়, গোটা বিষয়টি সিবিআই অনুসন্ধানে খতিয়ে দেখার রায় দিয়েছেন তিনি। যদিও রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, অবসরপ্রাপ্ত কোনওএ বিচারপতি বা তিন বিচারপতির বেঞ্চ খতিয়ে দেখুক পুরো বিষয়টা। যদিও সেই পরামর্শ মেনে নেননি বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: Malda Mystery Death : রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার যুবক-যুবতীর মৃতদেহ, চাঞ্চল্য মালদার জাহাজ ফিল্ড এলাকায়



Source link