West Burdwan TMC Workers Allegedly Raised Khela Habe Slogan To Dilip Ghosh, BJP Supporters Counter At Burnpur


পশ্চিম বর্ধমান: ত্রিপুরার (Tripura) পুরভোট ঘিরে বিজেপি (BJP) ও তৃণমূলের (TMC) সংঘাতের আঁচ ইকো পার্কের পর এবার পশ্চিম বর্ধমানের বার্নপুরেও। ফের বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি  দিলীপ ঘোষকে (Dilip Ghosh) দেখে ‘খেলা হবে’ (Khela Habe) স্লোগান তৃণমূলের। পাল্টা ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান বিজেপি সর্মথকদের। আজ বার্নপুর বাস স্ট্যান্ড এলাকায় চায়ের আসরে যোগ দেন দিলীপ ঘোষ। সেখানে তৃণমূল কর্মীরা ‘খেলা হবে’ স্লোগান দেওয়ায় উত্তেজনা ছড়ায়। পাল্টা জয় শ্রীরাম স্লোগান দেন বিজেপি সমর্থকরা। দিলীপ ঘোষের চা-চক্রে উপস্থিত ছিলেন আসানসোল দক্ষিণের বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল। তাঁর দাবি, গোটাটাই তৃণমূলের ষড়যন্ত্র। তৃণমূল কর্মীদের দাবি, ত্রিপুরায় সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার ও দলীয় কর্মীদের মারধরের প্রতিবাদে দিলীপ ঘোষকে দেখে খেলা হবে স্লোগান দেওয়া হয়। তৃণমূল নেতৃত্বের প্রতিক্রিয়া এখনও মেলেনি।

এর আগে শনিবারের পর ফের সোমবার। ইকোপার্কে প্রাতর্ভ্রমণে গিয়ে দিলীপ ঘোষের সঙ্গে তৃণমূল কর্মীদের স্লোগান-তরজা শুরু হয়েছিল।
ত্রিপুরায় ‘খেলা হবে’ স্লোগান দিয়ে গ্রেফতার হয়েছিলেন যুব তৃণমূলের রাজ্য সভানেত্রী সায়নী ঘোষ।যা, ঘিরে পুরভোটের আগে ত্রিপুরায় তুলকালাম চলছে।ত্রিপুরার পুরভোটের সেই উত্তেজনার  আঁচ ফের এসে পড়ে কলকাতায়।শনিবারের পর, সোমবারও নিউটাউনের ইকোপার্কে প্রাতর্ভ্রমণে গিয়ে দিলীপ ঘোষের সঙ্গে স্লোগান…পাল্টা স্লোগানে জমজমাট তরজায় জড়ান তৃণমূল কর্মীরা।

সোমবার নিউটাউনের ইকো পার্কে প্রাতর্ভ্রমণ করছিলেন দিলীপ ঘোষ। সেই সময়, সেখানে হাজির হন, রাজারহাট-নিউটাউনের যুব তৃণমূল সভাপতি-সহ তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকরা। সকলেই একই ধরনের টি শার্ট পরে ছিলেন।তার সামনে লেখা, ‘খেলা হবে’। আর, টি-শার্টের পিছন দিকে লেখা, ‘সব বেচে দে’।তাঁদের দেখে, হাসতে হাসতে…‘আসা বন্ধ করবেন না’… বলে পরামর্শও দেন দিলীপ ঘোষ।

গত শুক্রবার সন্ধেয় ত্রিপুরার রামনগর বিধানসভায় নির্বাচনী সভা করছিলেন তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। হঠাৎই সেখানে চলে আসে, বিজেপির একটি প্রচার গাড়ি।তখন সেখানে বাজছিল, বাবুল সুপ্রিয়রই গাওয়া ‘এই তৃণমূল আর না’ গান! এরপরের দিন, ইকোপার্কে প্রাতর্ভ্রমণ করার সময়, দিলীপ ঘোষকে উদ্দেশ্য করে ‘খেলা হবে’ স্লোগান দেন তৃণমূল কর্মীরা। পাল্টা, ত্রিপুরার প্রসঙ্গ তুলে, জবাব দেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরাও।এরপর সোমবার ফের স্লোগান-তরজায় জড়ায় তৃণমূল ও বিজেপি।



Source link